Wednesday, April 29, 2020

রোজা পালন না করলে যে ভয়ংকর শাস্তি অপেক্ষা করছে?
রোজা একটি নির্ধারিত বয়সের পর থেকে প্রত্যেক মুসলমানের জন্য ফরজ করা হয়েছে । এর প্রতিদান স্বয়ং আল্লাহ তাআলা নিজের হাতেই প্রদান করবেন । তবে রমজান মাসে যারা এই ফরজ ইবাদত থেকে দূরে থাকবেন । তাদের জন্য আছে ভয়াবহ শাস্তি । হযরত আবু উমামা রাদিয়াল্লাহু তা'আলা আনহু থেকে বর্ণিত রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামকে বলতে শুনেছি তিনি বলেন. আমি ঘুমিয়েছিলাম স্বপ্নে দেখলাম আমার নিকট দুই ব্যক্তি আগমন করল তারা আমাকে একটি বড় পাহাড়ের সামনে নিয়ে গেল আপনি পাহাড়ে উঠুন আমি বললাম আমি পড়তে পারব না তারা বলল আমরা আপনাকে সহজ করে দিব অর্থাৎ আমরা আপনাকে সাহায্য করব । 
আমি উপরে উঠলাম যখন পাহাড়ের উচুতে পৌছলাম হঠাৎ ভয়ংকর আওয়াজ শুনতে পেলাম । তারপর তারা আমাকে নিয়ে এগিয়ে চলল। দেখলোম কিছু মানুষের পায়ের মাংসপেশীর  ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে এবং তাদের মুখের দুই প্রান্ত ছিঁড়ে ফেলা হয়েছে তা থেকে রক্ত ঝরছে । আমি বললাম এরা কারা, যারা ইফতারের সময় হওয়ার আগেই রোজা ভেঙ্গে ফেলে । বন্ধুরা এই হাদীস থেকে আমরা স্পষ্ট হয়ে গেছি যে, রোজা ভঙ্গ করা ফরজ রোজা না রাখার কি ভয়ঙ্কর শাস্তি হতে পারে । যাদেরকে পায়ের মাংসপেশীর ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে অর্থাৎ তাদেরকে উল্টো করে ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে পৃথিবীতে তুলনা আমরা উল্টো ভাবে কতক্ষণ থাকতে পারি এক মিনিট ২ মিনিট তারপরেই আমাদের মাথাসহ মুখ লাল হয়ে যায় । অর্থাৎ পুরো শরীরের রক্ত মাথায় এসে জমা হতে থাকে। বেশীক্ষন উল্টো হয়ে থাকলে মানুষ মারা যাওয়াটাই স্বাভাবিক । এতে করে হার্টের শক্তি কমে যায় । ফলে আস্তে আস্তে মাথায় রক্ত জমাট বাঁধতে শুরু করে তো বন্ধুরা এতো জাহান্নামের আগুন অর্থাৎ জাহান্নামের শাস্তি আগুনের মধ্যে হয়ে থাকে তার উপরে আবার পায়ের মাংসপেশীর উপরের দিকে দিয়ে ঝুলানো এবং মুখের দুই প্রান্ত ছিঁড়ে ফেলা হয়েছে যে পরিমাণ ভয়ঙ্কর শাস্তি তা আপনারা এই হাদীসটি মাধ্যমে বুঝতে পারতেছেন । এখন একজন মুফতীর কথা বলব,  তিনি হচ্ছেন মুফতী মুহাম্মদ তাকী উসমানী কিছুদিন আগে উনার উপর পাকিস্তানের হামলা হয় । ওনার সাথে থাকা দুইজন লোক মারা যায় কিন্তু উনাকে আল্লাহ তাআলা অলৌকিক ভাবে বাঁচিয়ে দেন । উনি কত বড় আলেমদার আপনারা ইন্টারনেটে সার্চ দিলেই দেখতে পাবেন । তো বন্ধুরা চলুন উনি রমজান সম্পর্কে কিছু মূল্যবান কথা বর্ণনা করেছেন, রমজানকে শুধু রোজা ও তারাবির মধ্যে সীমাবদ্ধ করে ফেলবেন না বরং প্রথম থেকেই নিয়ত করুন আমি রমজানে একটাও ভুল করব না । তাহলে ইনশাআল্লাহ রমজান আমাদের জীবনে খুবই সুন্দর পরিবর্তন নিয়ে আসবে । আল্লাহ তাআলার হুকুমেই রোজা রাখলেন কিছু হারাম খাওয়া ছাড়লেন না। মিথ্যা কথা বললেন। বেগানা নারীকে কৃদৃষ্টিতে তাকালেন। তাহলে রোজা রেখে নিজেকে কিভারে পরিবতর্ন করলেন।  কাউকে ধোঁকা দিয়ে উপার্জন করা হয়েছে যা কোন নাজায়েজ পদ্ধতিতে ইনকাম করা হয়েছে । রোজা রাখলেন না খেয়ে আর ইফতার করলেন হারাম দিয়ে এটাতো অনেক আফসোসের কথা এর দ্বারা কিভাবে তাকওয়া অর্জন হবে । সিরাম/রোজা পালন করুন  আল্লাহ তাআলার সন্তুতির উদ্দ্যেশে।  আল্লাহ তাআলার আমাদের হেদায়েত দান করুন।

My writings and videos are tailored just for your needs. What other topics would you like to write about or video on? Please comment your valuable feedback. You can join my social site.

0 comments:

Post a Comment

Contact Us

Phone :

+88 016 3670 21**

Address :

Jamalpur, Mymensingh,
Bangladesh

Email :

zahangiralamjp@gmail.com